এদিকে আগামী ২২ এবং ২৩ এপ্রিল জলবায়ু সঙ্কট নিরসন সহ সাম্প্রতিক নানা বিষয়ে মত বিনিময় করতে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেণ্ট জো বাইডেনের ভার্চুয়াল বৈঠকের কথা রয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ সে বৈঠকের মাত্র তিনদিন পূর্বে মার্কিন শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে জয়শঙ্করের বৈঠকটিকে যথেষ্ট গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে বিশেষজ্ঞ মহল।”

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের সাথে টেলিফোন বৈঠক করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। গত ১৯ এপ্রিল, সোমবার, সাম্প্রতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলি নিয়ে মত বিনিময় করেন দুই নেতা। আলোচনায় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বিভিন্ন ইস্যু নিয়েও কথোপকথন হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ভার্চুয়াল এই বৈঠকটির কথা ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর নিজেই এক টুইটবার্তায় নিশ্চিত করেছেন। টুইটে তিনি লিখেছেন, “আজ সন্ধ্যায় মার্কিন সেক্রেটারী অব দ্যা স্টেট ব্লিংকেনের সঙ্গে কথা হলো। আলোচনায় ভারতের সাম্প্রতিক পররাষ্ট্রনীতি এবং আন্তঃমহাদেশীয় সম্পর্কের বিষয় প্রাধান্য পেয়েছে। নিরাপত্তা পরিষদে আমাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়েও আমাদের কথা হয়েছে।”

এদিকে আগামী ২২ এবং ২৩ এপ্রিল জলবায়ু সঙ্কট নিরসন সহ সাম্প্রতিক নানা বিষয়ে মত বিনিময় করতে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেণ্ট জো বাইডেনের ভার্চুয়াল বৈঠকের কথা রয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ সে বৈঠকের মাত্র তিনদিন পূর্বে মার্কিন শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে জয়শঙ্করের বৈঠকটিকে যথেষ্ট গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে বিশেষজ্ঞ মহল।

উল্লেখ্য, বৈশ্বিক এ শীর্ষ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, চীনা রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং এবং রাশিয়ার ভ্লাদিমির পুতিন সহ আরও ৪০ জন বিশ্ব নেতাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকে চলমান করোনা মহামারীতে করণীয় এবং স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা সম্পর্কিত বিষয়গুলোও স্থান পেয়েছে। সম্প্রতি ভারতীয় বৃহত্তম ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান সিরাম ইনস্টিটিউ ইন্ডিয়া কাঁচামাল সঙ্কটের কথা জানিয়েছে। এ বিষয়ে সহানুভূতি সম্পন্ন দৃষ্টিপাত করতে এবং কাঁচামাল সরবরাহে আমেরিকান নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান আদার পুনাওয়ালা সম্প্রতি মার্কিন প্রশাসনকে টুইট করেছিলেন। ভারতে করোনা প্রতিরোধকারী অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা প্রস্তুতকরণের দায়িত্ব পেয়েছে এই সিরাম ইনস্টিটিউট।

তবে কাঁচামাল সরবরাহের এই সঙ্কটের মাঝেই জয়শঙ্কর জানিয়েছেন, ভারতে প্রস্তুতকৃত কোভিড ভ্যাকসিন রপ্তানীর সিদ্ধান্তে তাঁর সরকার অটূট রয়েছে এবং কাঁচামাল সরবরাহ সহজ করার জন্য দিল্লী বড় দেশগুলোকে চাপ দিচ্ছে। অল ইন্ডিয়া ম্যানেজমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত এক সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি। এসময় সরকারের সাহায্য করার বদলে সমালোচনাকারীদেরও একহাত নেন তিনি।