ব্যবসায়িক সম্পর্ক স্থাপনের ক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা এবং নির্ভরযোগ্য নীতিই মূল বিষয় বলে মন্তব্য করেছেন ভারতীয় রাষ্ট্রদূত।

ভারতীয় শিল্প ও বাণিজ্য শ্রীলঙ্কার সাথে অংশীদারিত্বের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত বলে মন্তব্য করেছেন দেশটিতে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার গোপাল বাঘলে। তিনি বলেন, “দীর্ঘ ইতিহাস এবং ঐতিহ্য, সম্প্রীতির মেলবন্ধন এবং সান্নিধ্যের কারণে ভারতীয় বাণিজ্য ও শিল্পের ক্ষেত্রে পার্টনার হিসেবে শ্রীলঙ্কা সবচেয়ে উপযুক্ত।”



পরবর্তীতে কলম্বোয় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনের এক বিবৃতিতে জানা যায়, গত ০৯ জুন, বুধবার, শ্রীলঙ্কা ইনভেস্টমেন্ট ফোরাম (এসএল-আইএফ) আয়োজিত এক বৈঠকে বাঘলে বলেন এসব কথা বলেন। এসময় টেকসই উন্নয়ন এবং দ্রুত বিকাশের লক্ষ্যে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে সমৃদ্ধি অর্জনের যে ভারতীয় চেষ্টা, সে বিষয়ে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন রাষ্ট্রদূত।



নিজের বক্তব্যে, শ্রীলঙ্কায় ভারতীয় বিনিয়োগের প্রকৃতি, সুযোগ এবং বেসরকারী খাতের অংশগ্রহণের গুরুত্বের কথা উল্লেখ করেন তিনি। এসময়, অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক অংশীদারিত্বের জন্য ভবিষ্যত বন্দর নির্মাণ, শিপিং, যোগাযোগ, লজিস্টিক, জ্বালানী, প্রযুক্তি, পর্যটন, পরিবহন, রিয়েল এস্টেট, স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং কৃষির মতো বিস্তৃত ক্ষেত্রে কাজের সম্ভাব্যতার উপর আলোকপাত করেন তিনি।



দ্বিপাক্ষিক প্রকল্প গুলোর দ্রুত বাস্তবায়নের উপরও জোর দেন তিনি। ব্যবসায়িক সম্পর্ক স্থাপনের ক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা এবং নির্ভরযোগ্য নীতিই মূল বিষয় বলে মন্তব্য করেন ভারতীয় রাষ্ট্রদূত।



এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, শ্রীলঙ্কান আঞ্চলিক সহযোগিতা প্রতিমন্ত্রী থারাকা বালাসুরিয়া। তিনিও নিজ বক্তব্যে, অটোমোবাইল, পোষাক শিল্প, ফ্যাব্রিক, আইটি সেক্টর, ফার্মাসিউটিক্যালস এবং শিক্ষা সহ শ্রীলঙ্কায় সম্ভাব্য ভারতীয় বিনিয়োগের বিষয়ে কথা বলেন এবং খাত গুলো সম্পর্কে ধারণা দেয়ার চেষ্টা করেন।



অনুষ্ঠানটিতে আরও বক্তব্য রাখেন, ভারতে নিযুক্ত শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার নীলুকা কাদুরুগামুয়া এবং সিসিসির ভাইস চেয়ারম্যান গোবিন্দস্বামী।