সৌরশক্তির ব্যবহার নিয়ে ভারত এবং শ্রীলঙ্কার জাতীয় লক্ষ্যে উল্লেখযোগ্য মিল রয়েছে।

শ্রীলঙ্কায় সৌরশক্তি প্রকল্প খাতে ব্যয়ের জন্য ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বরাদ্দ বাড়িয়েছে ভারত। গত ১৬ জুন, বুধবার, শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি গোটবায়া রাজাপাক্ষের উপস্থিতিতে লঙ্কান সরকার এবং ভারতের এক্সিম ব্যাংকের মধ্যে এ সংক্রান্ত একটি চুক্তি বিনিময় হয়েছে।



কলম্বোয় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনের বিবৃতিতে জানা যায়, শ্রীলঙ্কায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার গোপাল বাগলে এবং লঙ্কান প্রশাসনের ট্রেজারী সচিব এসআর অ্যাটগিয়েল নিজেদের মধ্যে চুক্তিনামাটি বিনিময় করেন।



জানা গিয়েছে, বৃদ্ধি করা ১০০ মিলিয়ন ডলার শ্রীলঙ্কায় সৌর শক্তি খাতে বিভিন্ন নতুন প্রকল্পের অর্থায়নে কাজে লাগানো হবে এবং ২০১৮ সালের মার্চে আন্তর্জাতিক সৌর জোট প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে ঘোষিত বিভিন্ন প্রকল্পে ব্যয় করা হবে।



উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠাকালীন সময়েই শ্রীলঙ্কা সহ মোট ৮৯ টি দেশ ভারত এবং ফ্রান্সের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা করা আন্তর্জাতিক সৌরশক্তি জোটের তালিকা ভূক্ত হয়। এর মূখ্য উদ্দেশ্য সৌর শক্তি ব্যবহার এর জন্য ইচ্ছুক রাষ্ট্রগুলোকে একত্রিত করা এবং প্রযুক্তিগত ও আর্থিক সহ নানান চ্যালেঞ্জ কাটিয়ে উঠা।



তাছাড়া, ২০৩০ সালের মধ্যে শ্রীলঙ্কার প্রয়োজনীয় মোট জ্বালানী শক্তির প্রায় ৭০ শতাংশ পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি দ্বারা পূরণের যে লক্ষ্য লঙ্কান রাষ্ট্রপতি রাজাপাক্ষে নিয়েছেন, উপরোক্ত চুক্তিটি বিনিময়ের ফলে ভারত প্রথম মিত্র রাষ্ট্র হিসেবে এই প্রকল্প বাস্তবায়নে শ্রীলঙ্কার অংশীদার হয়ে উঠলো।



প্রসঙ্গত, বিগত ৭ বছরে ভারতে সৌর শক্তি উৎপাদনের হাত ব্যাপক মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৪ সালে যেখানে ভারতের সৌর শক্তি উৎপাদন ছিলো ২.৬ গিগাওয়াট, সেখানে ২০২১ সালে তা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৩৪.৬ গিগাওয়াট। জাতীয়ভাবে ১০০ গিগাওয়াট সৌরশক্তি উৎপাদনের লক্ষ্য নিয়েছে ভারত সরকার।