ভারত ছাড়াও বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা এবং অন্য আরও কয়েকটি দেশ এশিয়া অঞ্চলের জন্য বরাদ্দকৃত টিকা গুলো পাবে

করোনা সঙ্কট মোকাবেলায় ভারত সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সাড়ে ৫ কোটি ডোজ টিকা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এর মধ্যে এশিয়াতে পাঠানো হবে ১ কোটি ৬০ লাখ ডোজ টিকা। দেশটির হাতে থাকা করোনাভাইরাসের এসব টিকা বিভিন্ন দেশে পাঠানোর একটি পরিকল্পনা চূড়ান্ত করা হয়েছে। জুন মাসের শেষ নাগাদ বিভিন্ন দেশে এসব চালান দেয়া আরম্ভ হবে।



হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, সাড়ে পাঁচ কোটি ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা যুক্তরাষ্ট্র বিভিন্ন দেশে পাঠাবে, তার মধ্যে ৪ কোটি ১০ লাখ ডোজ দেওয়া হবে টিকার আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম কোভ্যাক্সের মাধ্যমে। কোভ্যাক্সের মাধ্যমে পাঠানো টিকার ৭৫ শতাংশই পাবে লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়া এবং আফ্রিকা ও এশিয়ার বিভিন্ন দেশ, যার মধ্যে ভারতও রয়েছে।



প্রায় ১ কোটি ৪০ লাখ ডোজ টিকা যাবে লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়া অঞ্চলের বিভিন্ন দেশে। ১ কোটি ৬০ লাখ ডোজ এশিয়া এবং ১ কোটি ডোজ পাবে আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ। বাকি ১ কোটি ৫০ লাখ ডোজ পাঠানো হবে আঞ্চলিক গুরুত্বের বিবেচনায়। ওই অংশ থেকে কলম্বিয়া, আর্জেন্টিনা, ইরাক, ইউক্রেন, ফিলিস্তিনের গাজা ও পশ্চিম তীরে টিকা যাবে।



এই সাড়ে পাঁচ কোটি ডোজ টিকার মধ্যে থাকবে ফাইজার, মডার্না এবং জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা। যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন পেলে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকাও ওই তালিকায় যুক্ত করা হবে। হোয়াইট হাউজ বলেছে, তারা চায়, সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা জনগোষ্ঠী এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের যেনো এই টিকার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়।



জানা গিয়েছে বরাদ্দকৃত টিকা গুলো পাবে যথাক্রমে,

লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়া (১ কোটি ৪০ লাখ ডোজ) অঞ্চল থেকে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, কলম্বিয়া, পেরু, একুয়েডর, প্যারাগুয়ে, বলিভিয়া, উরুগুয়ে, গুয়াতেমালা, এল সালভাদর, হন্ডুরাস, হাইতি এবং অন্যান্য ক্যারিবিয়ান দেশ, ডোমিনিকান রিপাবলিক, পানামা এবং কোস্টারিকা।



এশিয়া (১ কোটি ৬০ লাখ ডোজ) অঞ্চল থেকে ভারত, নেপাল, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, মালদ্বীপ, ভুটান, ফিলিপিন্স, ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, লাওস, পাপুয়া নিউগিনি, তাইওয়ান, কম্বোডিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জ।



আফ্রিকা (১ কোটি ডোজ পাবে) অঞ্চল থেকে আফ্রিকান ইউনিয়নের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের তালিকা ঠিক করা হবে।



প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যে তাদের ৩১ কোটি ৮১ লাখ নাগরিককে টিকা দিয়ে ফেলায় হোয়াইট হাউস এখন তাদের হাতে থাকা বাড়তি টিকা অন্য দেশকে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে।