এর আগে সর্বশেষ ১৯৯২ সালে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিভি নরসিংহ রাও।

প্রথম ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আগামী ০৯ আগস্ট অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন নরেন্দ্র মোদী। এক টুইটবার্তায় এমনটি নিশ্চিত করেছেন জাতিসংঘে ভারতের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি সৈয়দ আকবরউদ্দিন।



সৈয়দ আকবরউদ্দিন জানান, এবারের বৈঠক হবে ভার্চুয়ালি। এ মাসেই ফ্রান্স থেকে জাতিসংঘের বৈঠকে সভাপতিত্বের দায়িত্ব এসেছে ভারতের হাতে। আর সে কারণেই আশা করা হচ্ছে, আগস্টে নিরাপত্তা পরিষদের সভা পরিচালনার দায়িত্ব নিতে পারেন নরেন্দ্র মোদি। এছাড়াও জাতিসংঘের একাধিক জরুরি বিভাগের বৈঠকে সভাপতিত্ব করার কথা রয়েছে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলার।



আকবরউদ্দিন টুইটে আরও জানিয়েছেন, নিরাপত্তা পরিষদের ৭৫ বছরের ইতিহাসে এই প্রথমবার ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এর আগে একাধিক বার দেশটি জাতিসংঘের বিভিন্ন বৈঠক পরিচালনার দায়িত্ব পেলেও ভারতের কোনও প্রধানমন্ত্রী কখনও সেগুলোতে সভাপতিত্ব করেননি।



উল্লেখ্য, এর আগে সর্বশেষ ১৯৯২ সালে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিভি নরসিংহ রাও। তবে সেসব অধিবেশনের সভাপতিত্ব করতে পারেননি তিনি।



প্রসঙ্গত, বহুল প্রতীক্ষা শেষে চলতি আগস্ট মাসে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতিত্ব করতে চলেছে ভারত। এ উপলক্ষ্যে একটি ভিডিও বার্তা প্রেরণ করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টিএস তিরুমূর্তি। তিনি বলেন, “আমাদের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের মাসে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতিত্ব করা এক বিরাট সম্মানের বিষয়।”



এসময় দায়িত্ব পালনকালে ভারতের অগ্রাধিকার সম্পর্কেও সম্যক ধারণা দেন তিরুমূর্তি। তিনি জানান, “সভাপতিত্বকালে সামুদ্রিক নিরাপত্তা, শান্তিরক্ষা এবং সন্ত্রাস দমন ইস্যুতে সরব থাকবে ভারত। এসব ইস্যুতে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকও আয়োজনের চেষ্টা করা হবে।”



নিরাপত্তা পরিষদে সভাপতিত্বের প্রথম কার্যদিবসে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে একটি প্রেস ব্রিফিং এর কথা রয়েছে তিরুমূর্তির।