বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং প্রবাসীদের আবাস সহ নানান ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়া ভারতের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার।

অস্ট্রেলিয়া সবসময় ভারতকে গুরুত্বপূর্ণ মিত্র এবং বিশ্বস্ত অংশীদার হিসেবে মূল্যায়ন করে বলে দাবি করলেন প্রাক্তন অজি প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবট। গত ০৫ আগস্ট, বৃহস্পতিবার, ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের সঙ্গে বৈঠক করেন অ্যাবট। সেখানে এমন মন্তব্য করেন তিনি। পরবর্তীতে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।



উক্ত বৈঠকে, ব্যপকভাবে টেকসই সংস্কার কর্মসূচী গ্রহণ করায় ভারতের ভূয়সী প্রশংসা করেন সাবেক অজি প্রধানমন্ত্রী। উল্লেখ্য, টনি অ্যাবট অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের বিশেষ বাণিজ্য দূত হিসেবে পাঁচ দিনের (০২-০৬ আগস্ট) সফরে ভারতে অবস্থান করছেন।



উক্ত বৈঠকে ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং অন্যান্য অর্থনৈতিক সম্পর্ক সহ সকল ধরণের কৌশলগত অংশীদারিত্ব আরও বৃদ্ধির নানাবিধ উপায় নিয়ে আলোচনা করেন দুই নেতা।



এসময়, সাম্প্রতিককালে অস্ট্রেলিয়া-ভারতের মধ্যকার সম্পর্কের ক্রমাগত উৎকর্ষ সাধিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। এছাড়াও তিনি অস্ট্রেলিয়ান বিনিয়োগকারীদের দৃষ্টি আকর্ষণে সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক সংস্কার, ভারতে এফডিআই নীতিমালা সহজ করা সহ নানাবিধ বিষয় তুলে ধরেন।



এছাড়াও, ভারতের জাতীয় অবকাঠামো পাইপলাইন প্রকল্পে বিনিয়োগের সুযোগ আরও ভালোভাবে খতিয়ে দেখতে অস্ট্রেলিয়ার বিশেষজ্ঞ দলকে ভারতের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার প্রস্তাব দেন সীতারামন।



এসব আলোচনার পাশাপাশি, করোনা মহামারী মোকাবেলায় আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন তাঁরা। একই সঙ্গে, স্থিতিশীল, সুরক্ষিত এবং সমৃদ্ধ ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল গড়তে একে অন্যকে সকল ধরণের সহযোগীতা করার অঙ্গীকারও ব্যক্ত করেন উভয়ে।



এর আগে একই দিনে, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবট। সেখানেও দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং অর্থনৈতিক সহযোগিতা আরও জোরদার করার বিষয়ে কথা বলেন তাঁরা।



কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত এক দশক সময়ে ভারত এবং অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য সম্পর্ক ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং করোনা পরবর্তী সময়ে এই সম্পর্ক আরও বাড়ানোর জন্যে কাজ করছে দু দেশের কর্তৃপক্ষ।



উল্লেখ্য, দ্বিপাক্ষিক ব্যাপক অর্থনৈতিক সহযোগিতা চুক্তিতে যুক্ত রয়েছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। এছাড়াও, ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে কোয়াডের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে কাজ করছে দেশ দুটো।