করোনা মহামারীর প্রভাব কাঁটিয়ে পর্যটন খাতে গতি ফেরাতে সহযোগিতা জোরদারের আশ্বাস দেয়া হয়েছে বৈঠকটিতে

ভারত, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকার সমন্বয়ে গঠিত আইবিএসএ ফোরামের পর্যটন মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩ আগস্ট, শুক্রবার, ভার্চুয়াল মাধ্যমে ভারতের সভাপতিত্বে উক্ত বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। করোনা মহামারীর প্রভাব কাঁটিয়ে পর্যটন খাতে গতি ফেরাতে সহযোগিতা জোরদারের আশ্বাস দেয়া হয়েছে বৈঠকটিতে।

উক্ত সভায় ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রী জি কিষান রেড্ডি। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্বও করেন তিনি। তিনি ছাড়াও উক্ত বৈঠকে ব্রাজিলের প্রতিনিধিত্ব করেন পর্যটন মন্ত্রী গিলসন মাচাদো নেতো এবং দক্ষিণ আফ্রিকার নেতৃত্বে ছিলেন পর্যটন উপমন্ত্রী মাছ আমোস মহলালেলা।

পরবর্তীতে বৈঠকটি সম্পর্কে নিজের ভেরিফাইড একাউন্ট থেকে একটি টুইট করেন জি কিষান রেড্ডি। তিনি বলেন, “আজ সন্ধ্যায় আইবিএসএ পর্যটন মন্ত্রীদের সভায় সভাপতিত্ব করলাম। আমরা সবাই সহযোগিতার বিষয়ে একমত এবং একটি সাধারণ কর্মসূচি পর্যালোচনা করেছি। বৈঠকে আইবিএসএ ট্যুরিজম অ্যাকশন প্ল্যান ২০২১-২৩ গ্রহণ করা হয়েছে।”

সভায়, পর্যটন খাতে সহযোগিতার মাধ্যমে আইবিএসএ রাষ্ট্র গুলোকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান রেড্ডি। সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর পর্যটন সংশ্লিষ্ট সকল কার্যক্রমে বিশেষ সহযোগিতার প্রস্তাবও রাখেন তিনি।

আলোচনাকালে ভারতের চলমান টিকা কার্যক্রমের চিত্রও তুলে ধরেন মন্ত্রী। তিনি জানান, ভারতে ইতোমধ্যে ভ্যাকসিনের ৫০০ মিলিয়ন ডোজ সম্পন্ন করা হয়েছে। পর্যটন অর্থনীতির পুনঃ প্রতিষ্ঠায় আভ্যন্তরীণ পর্যটনের গুরুত্বও তুলে ধরেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০০৩ সালে ব্রাজিলের ব্রাসিলিয়াতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের পর থেকে দীর্ঘদিন যাবত একত্রে কাজ করে যাচ্ছে আইবিএসএ ফোরাম। বিশেষ করে পারস্পরিক সাহায্য সহযোগিতার মাধ্যমে স্কিল ডেভেলপিং প্রোগ্রাম বৃদ্ধি এবং প্রশিক্ষণের আধুনিকায়নের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে তাঁরা।