কোপ-২৬ শীর্ষ সম্মেলন সফলভাবে আয়োজন করতে যুক্তরাজ্যকে সার্বিকভাবে সমর্থন ও সহযোগীতা করবে ভারত।

ভারত সার্বিকভাবে জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত জাতিসংঘের ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন ইউএনএফসিসিসি এবং প্যারিস জলবায়ু চুক্তির প্রতি দায়বদ্ধ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির কেন্দ্রীয় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী ভূপেন্দ্র যাদব।

পাশাপাশি আগামী নভেম্বরে যুক্তরাজ্যে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আসন্ন কোপ-২৬ শীর্ষ সম্মেলন সফলভাবে আয়োজন করতে ভারত সার্বিকভাবে দেশটিকে সমর্থন ও সহযোগিতা করবে বলেও জানান তিনি।

বুধবার, ১৮ আগস্ট, নয়াদিল্লিতে কোপ-২৬ সম্মেলনের সভাপতি এবং ব্রিটেনের পার্লামেন্ট সদস্য আলোক শর্মার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী। এসময় কোপ-২৬ শীর্ষ সম্মেলন ছাড়াও ভারত-যুক্তরাজ্য রোডম্যাপ-২০৩০ এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন তাঁরা।

আগামী ০১ নভেম্বর থেকে ১২ নভেম্বর সময়কালে ব্রিটেনের গ্লাসগোতে কোপ-২৬ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী মোদী সম্মেলনটিতে সশরীরে যোগ দিতে পারেন।

আলোক শর্মার সঙ্গে বৈঠককালে মন্ত্রী ভূপেন্দ্র যাদব বলেন, “উন্নত দেশগুলোকে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় আরও অর্থায়ন করতে হবে এবং উন্নত প্রযুক্তি হস্তান্তরে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে।” এক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের হস্তক্ষেপও কামনা করেন তিনি।

এসবের পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী মোদীর গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ সম্পর্কেও ধারণা দেন ভূপেন্দ্র। ভারতের উদ্যোগে শুরু হওয়া লিডারশিপ গ্রুপ ফর ইন্ডাস্ট্রি ট্রানজিশন (লিডআইটি), কোয়ালিশন অন কোয়ালিশন ডিজাস্টার রেসিলিয়েন্ট ইনফ্রাস্ট্রাকচার (সিডিআরআই) এবং ইন্টারন্যাশনাল সোলার অ্যালায়েন্স (আইএসএ) এর মতো বৈশ্বিক উদ্যোগ গুলো সম্পর্কে আলোক শর্মার সঙ্গে মতবিনিময় করেন মন্ত্রী ভূপেন্দ্র।

প্রসঙ্গত, ব্রিটিশ-ভারতীয় নাগরিক আলোক শর্মা ব্রিটেনের পার্লামেন্ট সদস্য এবং আসন্ন কোপ-২৬ শীর্ষ সম্মেলনের সভাপতিত্ব করছেন। তিনদিনের সফরে গত ১৬ আগস্ট ভারতে পদার্পণ করেন তিনি।