নরেন্দ্র মোদী সরকার আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে ভারতীয় রাজনৈতিক নেতাদের অবহিত করবে এবং করণীয় সম্পর্কে পরামর্শ চাইবে।

আফগানিস্তানের চলমান সংকট নিয়ে আলোচনার জন্য আগামী বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। সেখানে দেশের সকল সাংসদ এবং বরেণ্য নেতৃত্বের উদ্দেশ্যে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে বক্তব্য রাখবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

সোমবার, ২৩ আগস্ট, সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী এ কথা জানিয়েছেন। এছাড়াও, বৈঠক আয়োজনের বিষয়টি জানিয়ে ইতোপূর্বে একটি টুইট করেছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর নিজেই। তিনি লিখেছেন, “আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন যেনো এই বিষয়ে সকল দলের বরিষ্ঠ নেতাদের অবহিত করা হয়। সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী এ বিষয়ে সম্পূর্ণ তথ্য দেবেন।”

সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী এক টুইটে জানিয়েছেন, আগামী ২৬ আগস্ট সকাল ১১ টায় সংসদের দুই কক্ষের নেতাদের কাছেই আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি বিষয়ে সমস্ত কিছু খুলে বলবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এরপর করণীয় সম্পর্কে নেতাদের নিকট পরামর্শও চাইবেন তাঁরা।

আফগানিস্তানের বর্তমান প্রতিকূল পরিস্থিতিতে নিজেদের নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার। এছাড়াও, আন্তর্জাতিকভাবে আফগান ইস্যু ইতোমধ্যে নানা রঙ ধারণ করায় চাপে রয়েছে তাঁরা। তাই এমন পরিস্থিতিতে সর্বদলীয় বৈঠক আহ্বানের বিষয়টি যথেষ্ট গুরত্ব লাভ করেছে।

গতকালও ভিন্ন ৩ টি ফ্লাইটে ২ জন আফগান আইনপ্রণেতা ও তাঁদের পরিবার এবং সিংহভাগ ভারতীয় নাগরিকদের সহ ৩৯২ জনকে কাবুল থেকে দিল্লী নিয়ে এসেছে ভারত সরকার। এর মাঝে প্রথম ফ্লাইটে ১০৭ ভারতীয় নাগরিক সহ মোট ১৬৮ জন ভারতে এসে পৌছায়।

দ্বিতীয় ফ্লাইটে ৮৭ জন ভারতীয় ও ২ নেপালী নাগরিক সহ মোট ৮৯ জনকে দিল্লী নিয়ে আসে ভারতীয় বিমানবাহিনী। তাদেরকে তাজিকিস্তানের রাজধানী দুশানবে থেকে নিয়ে আসা হয়েছিলো। আর সর্বশেষ ফ্লাইটে কাতারের দোহা থেকে প্রায় ১৩৫ ভারতীয় নাগরিককে দেশে ফেরায় নরেন্দ্র মোদীর সরকার।