যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরিবেশ বান্ধব জ্বালানী অংশীদারিত্ব সম্প্রসারণে আগ্রহী ভারত

আগামী মাসে ভারত সফরে আসতে পারেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরি। সফরের সময়সূচী নির্দিষ্টভাবে জানানো না হলেও উক্ত সফরে ভারত-মার্কিন পরিবেশ বান্ধব জ্বালানী অংশীদারিত্ব বৃদ্ধিতে আলোচনা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।

গত ২৪ আগস্ট, মঙ্গলবার, ভারতের কেন্দ্রীয় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী ভূপেন্দ্র যাদবের সঙ্গে ফোনালাপ অনুষ্ঠিত হয় মার্কিন কূটনীতিক জন কেরির। এরপরই কেরির সম্ভাব্য ভারত সফরের কথা ঘোষণা করে সরকার।

মূলত, আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলন ‘কোপ-২৬’-কে কেন্দ্র করে চলতি বছর দ্বিতীয়বারের মতো ভারত সফরে আসবেন জন কেরি। এছাড়াও, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরিবেশ বান্ধব জ্বালানী অংশীদারিত্ব সম্প্রসারণে আগ্রহী ভারত।

কেরির সম্ভাব্য সফরের ফলে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব রোধে ভারত আরও বেশি ভূমিকা রাখার সুযোগ পাবে, পাশাপাশি আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও কাজ করার সুযোগ বৃদ্ধি পাবে। তাছাড়া দু পক্ষই নবায়নযোগ্য শক্তি, পরিবেশ বান্ধব শক্তি সহ নানা ইস্যুতে একত্রে কাজ করতে আগ্রহী।

প্যারিস চুক্তির লক্ষ্য পূরণের নিমিত্তে চলতি দশকে কর্মকাণ্ড বাড়ানোর লক্ষ্যে জলবায়ু ও পরিবেশ বান্ধব জ্বালানী এজেন্ডা ২০৩০ বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এক্ষেত্রে কেরির সম্ভাব্য ভারত সফর যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।