শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইন্সের নতুন সময়সূচী অনুসারে ভারতে সপ্তাহে চারটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে তাঁরা।

করোনার সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া ভারতীয় ভ্রমণ পিয়াসুদের জন্য প্রবেশের পথ সুগম করে দিচ্ছে শ্রীলঙ্কা। সীমান্ত খুলে দেয়ার পাশাপাশি ভারতে ০৯ টি শহর থেকে ফ্লাইট পুনরায় চালুর নির্দেশ দিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। পরবর্তীতে গত শনিবার এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করে ভারতে নিযুক্ত শ্রীলঙ্কান হাইকমিশন।

তবে, দেশটিতে গমনে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের যাত্রার কমপক্ষে ৭২ ঘন্টা পূর্বে পিসিআর নেগেটিভ সনদ পেতে হবে। পাশাপাশি দেশটিতে অবতরণের পর তাদেরকে পুনরায় পিসিআর পরীক্ষার সম্মুখীন হতে হবে।

শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইন্সের নতুন সময়সূচী অনুসারে ভারতে সপ্তাহে চারটি ফ্লাইট পরিচালনা করবে তাঁরা। এর মধ্যে চেন্নাইয়ে একটি, মুম্বাইয়ে তিনটি, বেঙ্গালুরুতে একটি সাপ্তাহিক ফ্লাইট পরিচালনা করবে তাঁরা। এছাড়াও, মাদুরাই, তিরুচিরাপল্লি, ত্রিভেন্দ্রাম এবং কোচিনে সপ্তাহে একবার ফ্লাইট চলবে এবং হায়দ্রাবাদ ও নয়াদিল্লির সঙ্গে দুবার ফ্লাইট চলবে।

শ্রীলঙ্কা ট্যুরিজমের চেয়ারপার্সন কিমারলি ফার্নান্দো বলেন, “আমরা আমাদের নিকটতম প্রতিবেশীদের আবারও স্বাগত জানাতে উন্মুখ, যেনো তারা শ্রীলঙ্কার বিভিন্ন বৈচিত্র্য ও ঐতিহ্য অনুভব করতে পারে। আমাদের দেশের সংস্কৃতি, বন্যপ্রাণী, প্রকৃতি, সমুদ্র সৈকত এবং আরও অনেক কিছু ভারতীয় ভ্রমণকারীদের কাছে সর্বদা জনপ্রিয় হিসেবে প্রতীয়মান ছিলো এবং পুনরায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁরা তা উপভোগ করবেন, আশা করি।”

উল্লেখ্য, গত কয়েক মাস যাবত দ্বীপ দেশটিতে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে ভ্যাকসিনেশনের কার্যক্রম অভিযান চলছে। আর মহামারীর শুরু থেকেই শ্রীলঙ্কার পাশে দাঁড়িয়েছে ভারত। সর্বশেষ উদাহরণ হিসেবে চলতি সপ্তাহেও কলম্বোকে ২৮০ টন তরল মেডিকেল অক্সিজেন সরবরাহ করে দিল্লী। এছাড়াও, মহামারীর শুরু থেকেই দেশটিকে বিভিন্ন ধরণের চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান এবং ভ্যাকসিন উপহারের মাধ্যমে দেশটির পাশে থেকেছে ভারত।