দক্ষিণ এশিয়া এবং ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের সাম্প্রতিক উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পর্কে মতবিনিময় করেছে ভারত এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি দল।

প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তা পর্যায়ে ২+২ বৈঠক করেছে যুক্তরাষ্ট্র এবং ভারত। গত ০১ সেপ্টেম্বর, বুধবার, ওয়াশিংটন ডিসিতে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।



সর্বশেষ গত বছর ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে ২+২ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের পর এই প্রথম দু দেশের মধ্যে কর্মকর্তা পর্যায়ে কোনো বৈঠক অনুষ্ঠিত হলো। মূলত গত বছর বৈঠকের পর থেকে এখনো অবধি দু দেশের মধ্যকার সার্বিক সম্পর্কের অগ্রগতি এবং চলতি বছরের শেষ দিকে পুনরায় মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা করা হয় সংলাপটিতে।



এছাড়াও, প্রতিরক্ষা, বিশ্ব জনস্বাস্থ্য, অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সহযোগিতা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, পরিচ্ছন্ন শক্তি এবং জলবায়ু অর্থায়নের মতো বিষয়ে কৌশলগত অংশীদারিত্বের বিষয়ে আলোচনা করেন দু দেশের শীর্ষ কর্মকর্তাগণ। পাশাপাশি সাইবার নিরাপত্তা, মহাকাশ গবেষণা এবং আধুনিক প্রযুক্তির সমসাময়িক নানা বিষয় নিয়েও মতবিনিময় করেন তাঁরা।



একই সঙ্গে, ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে শান্তি নিশ্চিতকরণ, বহুপাক্ষিক সংস্থাগুলোতে সম্পর্ক পুনর্মূল্যায়ন, সন্ত্রাসবাদ দমন, সমুদ্র নিরাপত্তা, সার্বিক সমৃদ্ধি নিশ্চিতকরণের মতো বিষয় গুলো আলোচনায় স্থান পেয়েছিলো বলে জানিয়েছে সূত্র।



সংলাপে ভারতীয় প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন যৌথভাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (আমেরিকা অঞ্চল) ভানি রাও এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (আন্তর্জাতিক সহযোগিতা) সোমনাথ ঘোষ।



অন্যদিকে, মার্কিন প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটির ইন্দো-প্যাসিফিক বিষয়ক প্রতিরক্ষা সহকারী সচিব ড. এলি রেটনার এবং স্টেট ডিপার্টমেন্টের দক্ষিণ ও মধ্য এশীয় বিষয়ক প্রধান উপ-সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এরভিন ম্যাসিঙ্গা।