ভারত এই প্রকল্পগুলো ভূমিকম্প পরবর্তী পুনর্গঠন প্যাকেজের অধীনে বাস্তবায়ন করবে।

ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ১৪ টি সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য এবং স্বাস্থ্য খাতের ১০৩ টি প্রকল্প পুনর্গঠনের জন্য ভারতের সঙ্গে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে নেপাল। ২০১৫ সালে দেশটির বিভিন্ন জেলায় অনুভূত হওয়া ভয়ঙ্কর ভূমিকম্পে এসব স্থাপনা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।



ভারত এই প্রকল্পগুলো ভূমিকম্প পরবর্তী পুনর্গঠন প্যাকেজের অধীনে বাস্তবায়ন করবে। ইতোমধ্যে ভারত সরকার নেপালের সার্বিক উন্নয়নে প্রায় ২৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান বরাদ্দ করেছে, যার মধ্যে শিক্ষা খাতে ৫০ মিলিয়ন ডলার এবং আবাসন প্রকল্পে উন্নয়নে ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করা হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করে একটি টুইট করেছে কাঠমুন্ডুতে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস।



উল্লেখ্য, ভারত সরকারের উক্ত পরিমাণ অর্থায়নে নেপালে সর্বমোট ৭১ টি শিক্ষা প্রকল্প, ৭ টি জেলায় ২৮ টি ঐতিহ্য সংরক্ষণ প্রকল্প, ১০ টি জেলায় ১৪৭ টি স্বাস্থ্য প্রকল্প এবং গোর্খা ও নুয়াকোট অঞ্চলে প্রায় ৫০ হাজার ঘর নির্মাণের কাজ চলছে।



নতুন চুক্তিতে ললিতপুর, নুওয়াকোট, রসুয়া এবং ধাডিং জেলায় ১৪ টি সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে এবং ললিতপুর, রসুয়া, নুওয়াকোট, সিন্ধুপালচৌক, রামেছাপ, দোলখা, গুলমি, গোর্খা এবং কাভার জেলায় স্বাস্থ্য খাতে ১০৩ টি প্রকল্পে অর্থায়ন করবে ভারত।



বিবৃতি অনুসারে, প্রকল্পটির বাস্তবায়ন করবে ভারতের এনআরএ -র সিএলপিআইইউ (বিল্ডিং)। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ভারতের ফার্স্ট সেক্রেটারি (ডেভেলপমেন্ট পার্টনারশিপ অ্যান্ড রিকনস্ট্রাকশন) কারুন বানসাল এবং নেপালের সিএলপিআইইউ (বিএলডিজি) প্রকল্প পরিচালক শ্যাম কিশোর সিং।