খবর চাওড় হয়েছে, ভারতে তৈরী কোভ্যাক্সিনকে স্বীকৃতি দিতে পারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এর মাঝেই অনুষ্ঠিত হলো সংস্থাটির প্রধানের সঙ্গে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিবের বৈঠক।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ড. টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইয়াসেসের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (পশ্চিম) রীনাত সান্ধু। ১৪ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, জেনেভায় উক্ত বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে কোভিড-১৯ মহামারী সম্পর্কিত নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।



পরবর্তীতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক টুইট বার্তায় বিষয়টি জানানো হয়। সেখানে মহামারী পরবর্তী প্রতিক্রিয়া ও করণীয়, ভ্যাকসিন এবং জরুরী ত্রাণ প্রসঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয় টুইটটিতে। বৈঠকটিকে ফলপ্রসূ হিসেবেও আখ্যা দেয় পররাষ্ট্র দপ্তর।



সম্প্রতি খবর চাওড় হয়েছে, ভারতে তৈরী বায়োটেকের কোভ্যাক্সিনকে স্বীকৃতি দিতে পারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এর মাঝেই অনুষ্ঠিত হলো সংস্থাটির প্রধানের সঙ্গে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিবের বৈঠক।



এছাড়াও, পরবর্তীতে ডব্লুআইপিও এর ডিজি ড্যারেন ট্যাং এর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন রীনাত। সেখানে ভারতের সঙ্গে উইপো’র অংশীদারিত্ব আরও ঘনিষ্ঠ করার বিষয়ে কথা বলেন তিনি। পৃথক এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী।



সূত্র জানিয়েছে, কোভ্যাক্সিনের থার্ড ফেজের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের নথি জমা দিয়েছে ভারত বায়োটেক। এই নথি পেশ করা হয়েছে সেন্ট্রাল ড্রাগ স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশনের কাছে। তাতে ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা ৭৭.৮ শতাংশ বলে দাবি করেছে ভারত বায়োটেক।



চলতি মাসেই আমেরিকা যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২৪ সেপ্টেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা তাঁর। তার আগেই কোভ্যাক্সিনকে ছাড় দিতে পারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। আর অনুমোদন পেলে ভারতীয়দের বিদেশ যাত্রার ক্ষেত্রে সমস্যা মিটবে বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।