শেরপা নিযুক্ত হবার পর প্রথমবারের মতো বৈঠকে অংশ নিলেন পীযূষ গয়াল।

জি-২০ গ্রুপের শেরপাদের বৈঠকে ভারতীয় প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গয়াল। গত ১৫ এবং ১৬ সেপ্টেম্বর ভার্চুয়াল মাধ্যমে হওয়া বৈঠকটিতে অংশ নেন তিনি। শেরপা নিযুক্ত হবার পর প্রথমবারের মতো বৈঠকে অংশ নিলেন পীযূষ গয়াল।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন জি-২০ গ্রুপে ইতালীর শেরপা রাষ্ট্রদূত লুইগি মাত্তিওলো। গ্রুপে পীযূষ গয়ালের অন্তর্ভূক্তিকে স্বাগত জানান তিনি।

বৈঠকটি আয়োজন করা হয়েছিলো মূলত জি-২০ জোটভূক্ত দেশগুলোর শীর্ষ নেতৃত্বের পরবর্তী সম্মেলনে ঘোষিত হতে যাওয়া সম্ভাব্য 'রোম ডিক্লারেশনে'র ড্রাফট তৈরির উপর আলোচনা করতে। আগামী ৩০ এবং ৩১ অক্টোবর জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, আগামী অক্টোবর মাসে ইতালীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের আগে ফোরামটিতে ভারতের শেরপা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় বাণিজ্য, শিল্প, ভোক্তা অধিকার, খাদ্য, বিতরণ ও বস্ত্র মন্ত্রী পীযূষ গয়ালকে। নতুন এই পরিচয়ে জোটের অন্যান্য রাষ্ট্রসমূহের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ নীতিগত আলোচনার দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

এর আগে গত সপ্তাহে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, “১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে জি-২০ ফোরামের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে ভারত। আগামী ২০২২ সালের ০১ ডিসেম্বর থেকে জি-২০ গ্রুপের সভাপতির দায়িত্ব নিবে ভারত। গত ২০১৪ সাল থেকে জি-২০ ফোরামে ভারতের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২০২৩ সালে প্রথমবারের মতো জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন আহবান করবে ভারত।”

প্রসঙ্গত, জি-২০ বিশ্বের অন্যতম আন্তর্জাতিক সংগঠন, যেখানে বিশ্বের প্রধান ১৯ টি অর্থনীতির দেশ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন একত্রে বৈশ্বিক নানা ইস্যুতে আলোচনায় মিলিত হয়। এর সদস্য রাষ্ট্র গুলো বিশ্বের প্রায় ৮০% জিডিপি, ৭৫% বৈশ্বিক বাণিজ্য নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়াও, বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৬০% এই সদস্য রাষ্ট্র গুলোর নাগরিক।