এই মহড়াটির লক্ষ্য মূলত দু দেশের মধ্যকার পারস্পরিক স্বার্থ রক্ষা এবং দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বৃদ্ধি।

যৌথ নৌ মহড়ায় অংশ নিয়েছে ভারত ও ইন্দোনেশিয়া। ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, সোমবার, ইন্দোনেশিয়ার সুন্দা প্রণালীতে মহড়াটি আরম্ভ হয়। এটি দু দেশের মধ্যকার যৌথ নৌ মহড়ার তৃতীয় সংস্করণ। মহড়াটি চলবে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর অবধি।

এই মহড়াটির লক্ষ্য মূলত দু দেশের মধ্যকার পারস্পরিক স্বার্থ রক্ষা এবং দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বৃদ্ধি। মহড়াটির ফলে দু দেশের ঐতিহাসিক ও ঐতিহ্যগত সম্পর্ক আরও বেশি এগিয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে আরও জানা যায়, মহড়াটিতে কিছু জটিল সামুদ্রিক অভিযান পরিচালনা করা হবে। তন্মধ্যে রয়েছে, মিলিটারি ইন্টারডিকশন অপারেশনস (এমআইও), ক্রস ডেক ল্যান্ডিংস, এয়ার ডিফেন্স সিরিয়াল, প্র্যাকটিস ওয়েপন ফায়ারিংস, রিপ্লিনিশমেন্ট অ্যাপ্রোচ এবং টেকটিক্যাল ম্যানুভার।

মহড়াটিতে ভারতের পক্ষে অংশ নিয়েছে ভারতীয় নৌ বাহিনীর জাহাজ আইএনএস শিবালিক ও কাদমাত। গত শনিবার জাকার্তায় পৌছায় তাঁরা। আইএনএস শিবালিক এবং কাদমাত ভারতের দেশীয়ভাবে ডিজাইন করা এবং নির্মিত মাল্টি রোল গাইডেড মিসাইল স্টিলথ ফ্রিগেট এবং অ্যান্টি-সাবমেরিন করভেট।

উভয় জাহাজই ভারতের ইস্টার্ন নেভাল কমান্ডের অধীনে বিশাখাপত্তনমে অবস্থিত ভারতীয় নৌবাহিনীর পূর্ব নৌবহরের অংশ। জাহাজ দুটো বহুমুখী অস্ত্র এবং সেন্সর দিয়ে সজ্জিত, হেলিকপ্টার বহন করতে পারে।

প্রসঙ্গত, ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে ভারতের সাম্প্রতিক ইস্ট-অ্যাক্ট নীতি অনুসারে বর্তমানে মিত্র ও সমমনা দেশ গুলোর সঙ্গে সম্পর্ক আরও গভীর করতে একাধারে যৌথ মহড়ায় অংশ নিচ্ছে ভারত।