আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে যুক্তরাজ্যের গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত হবে জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলন ‘কোপ-২৬’।

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় জাতিসংঘকে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ বৃদ্ধি, কাঙ্ক্ষিত সুযোগ ও কাজের গতি বৃদ্ধি এবং সবুজ প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও হস্তান্তরের দিকে মনোনিবেশ করার পরামর্শ দিয়েছে ভারত।



গত ২০ সেপ্টেম্বর, সোমবার, আসন্ন কোপ-২৬ শীর্ষ সম্মেলন ইস্যুতে জাতিসংঘ মহাসচিব এবং যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন কর্তৃক আয়োজিত বিশ্বনেতাদের এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন ভারতীয় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী ভূপেন্দ্র যাদব।



প্রসঙ্গত, আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে যুক্তরাজ্যের গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত হবে জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলন ‘কোপ-২৬’। সম্মেলনটি ৩১ অক্টোবর শুরু হয়ে ১২ নভেম্বর অবধি চলার কথা।



নিজ বক্তব্য প্রদানকালে যাদব বলেন, “জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত যেকোনো আলোচনাকালে এবং পদক্ষেপ নেয়ার পর সম্ভাব্য যেকোনো ফলাফলের জন্য ইউএনএফসিসিসির নীতি মেনে চলা জরুরী। ভারত সর্বদা তা মেনে চলেছে এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলার স্বার্থে কৃত কার্যক্রমে সার্বিকভাবে ভারত অন্যদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে।”





এসময় ভারতের নানামুখী প্রকল্প সম্পর্কে আলোচনা করেন তিনি। সূর্যশক্তির পূর্ণ সুফল পেতে আন্তর্জাতিক সৌর জোট গঠন এবং ২০৩০ সালের মধ্যে ৪৫০ গিগাওয়াট নবায়নযোগ্য জ্বালানী অর্জনের যে অঙ্গীকার ভারত করেছে, সেটিও সবাইকে জানান যাদব।



এসবের পাশাপাশি উন্নত দেশগুলো উন্নয়নশীল দেশগুলোকে সাহায্য করার জন্য যে বরাদ্দ দিয়েছিলো, সেটিও দ্রুত এবং কার্যকর উপায়ে প্রদানের বিষয়ে আলোচনা করেন তিনি।