মোদী বলেন, ভারত শীঘ্রই আবারও অন্যান্য রাষ্ট্রে ভ্যাকসিন সরবরাহ শুরু করবে।

বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন সার্টিফিকেটের পারস্পরিক স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ভ্রমণ সহজ করার আহবান জানিয়েছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গত ২২ সেপ্টেম্বর, বুধবার, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আয়োজিত গ্লোবাল কোভিড-১৯ শীর্ষ সম্মেলনে বক্তব্য প্রদানকালে এ কথা বলেন তিনি।



মোদী বলেন, “অতিমারীর অর্থনৈতিক প্রভাব মোকাবিলায় আমাদেরকে মনোযোগ দিতে হবে। সেজন্য, ভ্যাকসিন সার্টিফিকেটের পারস্পরিক স্বীকৃতির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ভ্রমণ সহজ করা উচিত।”



কোয়াড শীর্ষ সম্মেলনে যোগদান এবং জাতিসংঘের ৭৬ তম অধিবেশনে ভাষণ প্রদানের উদ্দেশ্যে যুক্তরাষ্ট্র যাবার পথে বিমান থেকেই ভার্চুয়াল মাধ্যমে গ্লোবাল কোভিড-১৯ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেন মোদী। সেখানে নিজের পাঁচ মিনিটের বক্তব্যে তিনি বলেন, “করোনা মোকাবেলায় নতুন ধাচের ভারতীয় ভ্যাকসিন তৈরি করার পাশাপাশি আমরা চলতি ভ্যাকসিনের উৎপাদন ক্ষমতাও বাড়িয়ে তুলছি। আমাদের উৎপাদন বৃদ্ধির ফলে অন্যদেরও ভ্যাকসিন সরবরাহ পুনরায় শুরু করতে সক্ষম হবো।”



এসময়, বিশ্বজুড়ে ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে ভ্যাকসিনের কাঁচামাল সরবারহও সুনিশ্চিত রাখার উপর গুরুত্ব দিয়েছেন মোদী। তাছাড়া, ভারত বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বৃহৎ টিকা দান কর্মসূচি পরিচালনা করছে বলেও জানান তিনি।



ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, “সম্প্রতি আমরা একদিনে প্রায় আড়াই কোটি মানুষকে টিকার ডোজ দিয়েছি। এখনও অবধি প্রায় ৮০ কোটির বেশি নাগরিক টিকার আওতায় এসেছেন। প্রায় ২০ কোটিরও বেশি নাগরিক টিকার দুটো ডোজই সম্পন্ন করেছেন। এটি আমাদের তৃণমূল স্তরে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নতির দিকে ইঙ্গিত করে। তাছাড়া, ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম কো-উইনের সর্বোচ্চ ব্যবহারের সুফলও আমরা পাচ্ছি।”



মোদী বলেন, “ভারত ওষুধ শিল্পে দিনকে দিন বিকাশ করছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় বর্তমানে ভারতকে বিশ্বের ফার্মেসী হিসেবে চিহ্নিত করে থাকে। সবচেয়ে সাশ্রয়ী মূল্যে সবচেয়ে গুণমানসম্পন্ন জিনিস উৎপাদনে আমাদের বিকল্প নেই। বিশ্ব দেখেছে, প্রায় ১৫০ টিরও বেশি রাষ্ট্রে আমরা ভ্যাকসিন কিংবা জরুরী ওষুধ সাপ্লাই করেছি।”



এদিকে আজ, বৃহস্পতিবার, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মার্কিন সফর শুরু হচ্ছে পাঁচ আন্তর্জাতিক সংস্থার সিইওর সঙ্গে বৈঠকের মধ‌্য দিয়ে। ঠাসা কর্মসূচিতে তিনি সাক্ষাৎ করবেন, কোয়ালকম সিইও ক্রিস্টিয়ানো আর আমন; অ‌্যাডব চেয়ারম‌্যান শান্তুনু নারায়েন; ফার্স্ট সোলার সিইও মার্ক উইডমার; জেনারেল অ‌্যাটমিকস সিইও বিবেক লাল; এবং ব্ল‌্যাকস্টোন সিইও স্টিফেন এ সোয়ার্জম‌্যানের সঙ্গে। তাঁদের সঙ্গে ভারতের বর্তমান শিল্প ও বিনিয়োগের পরিবেশ নিয়ে আলোচনা করবেন মোদী।



তাছাড়া, মার্কিন ভাইস প্রেসিডেণ্ট কমলা হ্যারিসের সঙ্গেও আজই বৈঠকের কথা রয়েছে তাঁর।