বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়ার পর প্রথমবারের মতো সরাসরি বৈঠক করলেন দুই নেতা

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গত ২৩ সেপ্টেম্বর, বৃহস্পতিবার, ওয়াশিংটন ডিসিতে সাক্ষাৎ করেন তাঁরা। বৈঠকে দ্বিপক্ষীয়, আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।



পরবর্তীতে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে তথ্যটি নিশ্চিত করা হয়েছে। মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কোয়াড শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণের পূর্বে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নিয়েছেন মোদী-মরিসন। এসময়, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য, বিনিয়োগ, অংশীদারিত্ব, জলবায়ু ইস্যুতে সহযোগিতা সহ সাম্প্রতিক আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক নানা ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে দুই নেতার।



এসবের পাশাপাশি সম্প্রতি ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে অনুষ্ঠিত হওয়া মন্ত্রী পর্যায়ের টু প্লাস টু বৈঠকের ফলাফল এবং কয়লা অংশীদারিত্বের বিষয়েও কথা বলেন তাঁরা। মূলত, গত বছর জুন মাসে অজি প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভার্চুয়াল বৈঠকের পরই মন্ত্রী পর্যায়ে ২+২ বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেয় দেশ দুটো। মন্ত্রী পর্যায়ে বৈঠক আয়োজনের পূর্বে নীতিগত আলোচনা ঠিক করতে একাধিকবার শীর্ষ কর্মকর্তা পর্যায়ে ২+২ বৈঠক আয়োজন করে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া।



একই সঙ্গে আলোচনায় থাকা ব্যাপক অর্থনৈতিক সহযোগিতা চুক্তি ইস্যুতেও আলোচনা করেন মোদী ও মরিসন। উল্লেখ্য, ব্যাপক অর্থনৈতিক চুক্তির প্রাসঙ্গিকতা যাচাই করতে এবং আলোচনা এগিয়ে নিতে গত আগস্ট মাসে ভারত সফর করেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবট। সেবার ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং অন্যান্য অর্থনৈতিক সম্পর্ক সহ সকল ধরণের কৌশলগত অংশীদারিত্ব আরও বৃদ্ধির নানাবিধ উপায় নিয়ে আলোচনা করেন তিনি।



মহামারী পরবর্তী সময়ে অর্থনীতির গতি পুনরুদ্ধারে এবং সবার জন্য ভ্যাকসিন সরবরাহ করণের বিষয়ে আলোচনায় জোর দেন মোদী ও মরিসন। এসময়, মহামারী কালে ভারতকে সহযোগিতা করা অজি নাগরিক এবং অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত ভারতীয় সম্প্রদায়ের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন মোদী।



আলোচনার শেষ ধাপে মরিসনকে শীঘ্রই ভারত ভ্রমনের আমন্ত্রণ জানান ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী।