আইবিএসএ ফোরামের সভাপতি হিসেবে ভারত এবছর ষষ্ঠ আইবিএসএ শীর্ষ সম্মেলন আয়োজনের পরিকল্পনা করছে।

প্রথমবারের মতো উন্নয়ন সহযোগিতা সংস্থাগুলোর বৈঠক হলো ভারত, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকার সমন্বয়ে গঠিত জোট আইবিএসএ ফোরামে। গত ২৯ সেপ্টেম্বর, বুধবার, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সার্বিক উন্নতিকল্পে বিস্তর আলোচনা হয় আইবিএসএ ফোরামের উন্নয়ন সহযোগিতা সংস্থা গুলোর বৈঠকে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেছে ভারত।



পরবর্তীতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচীর এক টুইটবার্তায় বিষয়টি জানানো হয়। বাগচী লিখেছেন, “দক্ষিণের সঙ্গে দক্ষিণের সম্পর্ক আরও জোরদারে পরবর্তী রূপরেখা নির্ণয় করতে বিস্তর আলোচনা করেছে আইবিএসএ উন্নয়ন সহযোগিতা সংস্থার বৈঠকে।”



উল্লেখ্য, আইবিএসএ ফোরামের সভাপতি হিসেবে ভারত এ বছর ষষ্ঠ আইবিএসএ শীর্ষ সম্মেলন আয়োজনের পরিকল্পনা করছে। এবারের সম্মেলনের থিম হবে, ডেমোক্রেসি ফর ডেমোগ্রাফি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট। এর আগে পাঁচটি আইবিএসএ লিডারশিপ সামিট অনুষ্ঠিত হয়েছে। সর্বশেষ সম্মেলন প্রিটোরিয়াতে অনুষ্ঠিত হয়েছিলো।



এর আগে গত ১১ এবং ১২ আগস্ট ৭ম আইবিএসএ একাডেমিক ফোরামের উদ্বোধন করেছিলেন ভারতের কেন্দ্রীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রাজকুমার রঞ্জন সিং। দুদিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত ইভেন্টটি আয়োজন করে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্বায়ত্তশাসিত থিংক ট্যাঙ্ক রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম ফর ডেভেলপিং কান্ট্রিজ (আরআইএস)।



প্রসঙ্গত, আইবিএসএ -এর বর্তমান চেয়ারম্যান ভারত। এটি পৃথিবীর তিনটি ভিন্ন ভিন্ন মহাদেশের তিনটি বৃহৎ গণতান্ত্রিক শক্তির সমন্বয়ে গঠিত একটি সহযোগিতা জোট। ২০০৩ সালে ব্রাজিলের ব্রাসিলিয়াতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের পর থেকে দীর্ঘদিন যাবত একত্রে কাজ করে যাচ্ছে আইবিএসএ ফোরাম। বিশেষ করে পারস্পরিক সাহায্য সহযোগিতার মাধ্যমে স্কিল ডেভেলপিং প্রোগ্রাম বৃদ্ধি এবং প্রশিক্ষণের আধুনিকায়নের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে তাঁরা।