বিশাখাপত্তমে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ ‘সমুদ্র অভিযানে’ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ভারতীয় নৌ যোদ্ধাদের সম্মান জানান ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহাম্মদ ইমরান।

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখায় ভারতীয় নৌবাহিনীর ১০ প্রবীণ যোদ্ধাকে সম্মান জানিয়েছে বাংলাদেশ। গত ০৫ অক্টোবর, মঙ্গলবার, ভারতের সমুদ্র বন্দর বিশাখাপত্তমে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ ‘সমুদ্র অভিযানে’ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ভারতীয় নৌ যোদ্ধাদের সম্মান জানান ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহাম্মদ ইমরান।



বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়েছিলো। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় নৌবাহিনীর ইস্টার্ন ফ্লিটের কমান্ডার ফ্ল্যাগ অফিসার ভিএসএম রিয়ার এডমিরাল তরুণ সোবতী। অন্যান্যদের মাঝে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় নৌবাহিনীর রিয়ার এডমিরাল জ্যোতিন রানা এবং আরও অনেক সিনিয়র কর্মকর্তাবৃন্দ।



উল্লেখ্য, চলতি বছর বাংলাদেশ এবং ভারত নিজেদের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ তম বর্ষ উদযাপন করছে। পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যেও যৌথভাবে নানা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ ও ভারত।



দু দেশের মধ্যকার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক সর্বজনবিদিত। এবছরই প্রথমবারের মতো ভারতীয় প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে অংশ নিয়েছিলো বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতিনিধি দল। তাছাড়া, নিয়মিত বিভিন্ন মহড়াতেও অংশ নিয়ে থাকে দু দেশের সশস্ত্র বাহিনী।



গত মার্চে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এছাড়াও, গত এপ্রিল মাসে বাংলাদেশ সফরে যান ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। বাংলাদেশের সেনাপ্রধানও সম্প্রতি ভারত সফর করেন। পাশাপাশি মহামারীর শুরু থেকেই একে অন্যের পাশে দাঁড়িয়েছিল মিত্র দেশ দুটো। দু দেশের জনগণের মধ্যে ঐতিহাসিকভাবে দৃঢ় সম্পর্ক বিদ্যমান।