নির্বাচিত হতে মাত্র ৯৭ ভোটের প্রয়োজন হলেও, ১৯৩ সদস্যের সাধারণ পরিষদে ১৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে ভারত।

জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রসমূহের বিপুল সমর্থনে রেকর্ড ষষ্ঠ মেয়াদে মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হলো ভারত। গত ১৪ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার, ভারতকে জেনেভা ভিত্তিক এই কাউন্সিলের সদস্য হিসেবে ঘোষণা দেয় জাতিসংঘ। নির্বাচিত হতে মাত্র ৯৭ ভোটের প্রয়োজন হলেও, ১৯৩ সদস্যের সাধারণ পরিষদে ১৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে ভারত।



পরবর্তীতে তথ্যটি নিশ্চিত করে বিবৃতি দেয় জেনেভায় নিযুক্ত ভারতের স্থায়ী মিশন। কাউন্সিলের অন্য সদস্য রাষ্ট্রসমূহের সঙ্গে মিলে বিশ্বব্যাপী মানুষের সুরক্ষা নিশ্চায়নের দৃঢ় অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করা হয় বিবৃতিতে।



জানা গিয়েছে, জাতিসংঘের ৭৬ তম অধিবেশনে মানবাধিকার কাউন্সিলের জন্য ১৮ টি নতুন সদস্য রাষ্ট্র নির্বাচন করা হয় বৃহস্পতিবার। আগামী বছরের ০১ জানুয়ারী থেকে তিন বছর মেয়াদী নতুন এই দায়িত্ব শুরু হবে ভারতের।



ফল ঘোষণার পর এক টুইট বার্তায় নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ভারতীয় স্থায়ী প্রতিনিধি টিএস তিরুমুর্তি। তিনি বলেন, “আজ নিঃসন্দেহে ভারতের জন্য একটি গর্বের দিন। ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে আমরা জয়যুক্ত হয়েছি। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ও বহুত্ববাদী দেশ হিসেবে আমাদের অবস্থানকে আরও সুসংহত করবে এই বিজয়।”



বিশ্বব্যাপী পারস্পরিক সম্মান, সহযোগিতা এবং অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে নিজেদের দায়িত্ব পালন করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।



প্রসঙ্গত, মানবাধিকার কাউন্সিলের বর্তমান পরিষদেও দায়িত্ব পালন করছে ভারত। চলতি মেয়াদ শেষ হবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর। এরপর ২০২৪ অবধি দায়িত্ব পালন করবে নয়াদিল্লী।



উল্লেখ্য, ৪৭ সদস্য বিশিষ্ট জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিল ২০০৬ সালে বিশ্বের সর্বত্র নাগরিক অধিকার সমুন্নত করার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। প্রতি তিন বছর অন্তর এখানে নির্বাচন হয়ে থাকে। এখানে কোনো সদস্য রাষ্ট্র টানা দু বারের বেশি নির্বাচিত হতে পারেনা। সাধারণ পরিষদ সদস্যদের মধ্যে থেকেই অঞ্চলভেদে এই পরিষদের সদস্যপদ প্রদান করা হয়ে থাকে।