নিজেদের মধ্যকার ১১ তম ডিফেন্স টেকনোলজি অ্যান্ড ট্রেড ইনিশিয়েটিভ (ডিটিটিআই) গ্রুপের বৈঠক করেছে ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি খাতে সম্পর্ক ও অংশীদারিত্ব জোরদারে সম্মত হয়েছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র। গত ০৯ নভেম্বর, মঙ্গলবার, নিজেদের মধ্যকার ১১ তম ডিফেন্স টেকনোলজি অ্যান্ড ট্রেড ইনিশিয়েটিভ (ডিটিটিআই) গ্রুপের বৈঠক করেছে দেশ দুটো। পরবর্তীতে তথ্যটি নিশ্চিত করে বার্তা দিয়েছে ভারতীয় প্রতিরক্ষা দপ্তর।

বৈঠকটিতে যৌথভাবে সভাপতিত্ব করেন ভারত সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব (প্রতিরক্ষা উৎপাদন) রাজকুমার এবং মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি অফ ডিফেন্স গ্রেগরি কাউসনার।

জানা গিয়েছে, প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি খাতে সহযোগিতা জোরদার করার উদ্দেশ্যে একটি স্টেটমেন্ট অফ ইনটেন্ট ঘোষণা করেছে দেশ দুটো। এটি দু পক্ষের মধ্যকার বিস্তারিত পরিকল্পনা অনুসরণ করবে এবং পরিমাপযোগ্য অগ্রগতি করে পর্যালোচনা করবে।

বৈঠকে, পারস্পরিক সম্মতির ভিত্তিতে নিজেদের মধ্যে নির্ধারিত স্থল, নৌ, বিমান এবং বিমান বাহক প্রযুক্তির অংশীদারিত্বের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করতে চারটি যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এ ধরণের জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ এয়ার সিস্টেমের অধীনে এয়ার-লঞ্চড মনুষ্যবিহীন এরিয়াল ভেহিক্যালের জন্য প্রথম প্রজেক্ট এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষরিত হয়েছিল ডিটিটিআই গ্রুপের ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে শেষ বৈঠকের পর।

উল্লেখ্য, ডিটিটিআই গ্রুপের লক্ষ্য হলো দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা বাণিজ্য অংশীদারিত্বে টেকসই নেতৃত্বের ফোকাস নিশ্চায়ন এবং প্রতিরক্ষা সরঞ্জামসমূহের উৎপাদন ও বিকাশের সুযোগ তৈরি করা। ডিটিটিআই গ্রুপের মিটিং সাধারণত বছরে দুবার হয়। করোনা মহামারীর কারণে এসব বৈঠক বাধাগ্রস্ত হয়েছিলো।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মতে, ডিআইসিএফ ভারতীয় এবং মার্কিন শিল্পগুলোকে ডিটিটিআই-তে সরাসরি জড়িত হওয়ার সুযোগ দেয় এবং শিল্প সহযোগিতাকে প্রভাবিত করে এমন সমস্যাগুলিতে সরকার ও শিল্পের মধ্যে আলোচনার সুবিধা দেয়৷