নির্বাচনে ১৬৩ ভোট পেয়েছেন ভারতীয় অধ্যাপক বিমল প্যাটেল, যা এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করা সকল প্রার্থীর চেয়ে বেশি.

জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক আইন কমিশনে ৫ বছরের জন্য নির্বাচিত হলেন ভারতীয় অধ্যাপক বিমল প্যাটেল। গত ১২ নভেম্বর, শুক্রবার, এক প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ নির্বাচনে ১৯২ ভোটের মধ্যে ১৬৩ ভোট পেয়ে নিজ আসন পাকা করেন ভারতের রাষ্ট্রীয় রক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বোর্ডের এই সদস্য।

পরবর্তীতে নিউইয়র্কে অবস্থিত জাতিসংঘে ভারতের স্থায়ী মিশনের এক টুইটবার্তায় তথ্যটি নিশ্চিত করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করা সকল প্রার্থীর চেয়ে বেশি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে অধ্যাপক প্যাটেল। আগামী ০১ জানুয়ারী, ২০২৩ ইং তারিখ থেকে নিজের দায়িত্ব পালন শুরু করবেন তিনি।

জাতিসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত টিএস তিরুমুর্তি তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এক টুইটবার্তায় বলেন, “গ্রুপের শীর্ষে থেকে আন্তর্জাতিক আইন কমিশনে নির্বাচিত হওয়ায় অধ্যাপক বিমল প্যাটেলকে আন্তরিক অভিনন্দন। ব্যাপক সমর্থন প্রদানের জন্য জাতিসংঘের সমস্ত সদস্য রাষ্ট্রের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।”

বোদ্ধামহল ধারণা করছে, বিমল প্যাটেলের প্রতিনিধিত্বে আন্তর্জাতিক আইনের নিয়ম-ভিত্তিক শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সচেষ্ট থাকবে ভারত। উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক আইন কমিশনে মোট প্রতিনিধিত্বকারীর সংখ্যা ৩৪। সংস্থাটি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সমর্থনে জাতিসংঘ সনদের ১৩ (১) (ক) অনুচ্ছেদ অনুসারে ১৯৪৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো।

প্রসঙ্গত, অধ্যাপক বিমল প্যাটেল একজন সম্মানিত শিক্ষাবিদ, আইনবিদ এবং প্রশাসক। তিন দশকের কর্মজীবনে তিনি গুজরাট জাতীয় আইন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক এবং ভারতের ২১ তম আইন কমিশনের সদস্যের মতো বিভিন্ন ভূমিকা পালন করেছেন।

ভারতের রাষ্ট্রীয় রক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে বর্ণিত তার প্রোফাইল অনুসারে, তিনি নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগ-এ ইউনাইটেড নেশনস অফ ইয়ুথ এবং অর্গানাইজেশন ফর দ্য প্রোহিবিশন অফ কেমিক্যাল ওয়েপনস (OPCW) এর মতো বৈশ্বিক সংস্থাগুলিতে ১৫ বছর ধরে কাজ করছেন।

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক