শ্রীলঙ্কা ও ভারতের সাংস্কৃতিক, ঐতিহ্যগত ও ভাষাগত সম্পর্ক প্রায় দু হাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে চলে আসছে

শ্রীলঙ্কান পুলিশের জন্য হিন্দি ভাষার বিশেষ দক্ষতা কোর্স চালু করেছে কলম্বোয় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশন। গত ১০ জানুয়ারী, সোমবার, বিশ্ব হিন্দি দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে কোর্সটি চালু করা হয় বলে জানিয়েছে হাইকমিশন।

এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ভারতীয় হাইকমিশনের সাংস্কৃতিক শাখা স্বামী বিবেকানন্দ কালচারাল সেন্টারে (এসভিসিসি) ভাষা কোর্সের লঞ্চিং ইভেন্টটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল এবং এতে ৭০ জন সিনিয়র পুলিশ অফিসার এবং শ্রীলঙ্কার পুলিশ সার্ভিসের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার বিনোক কে জ্যাকব বলেন, “শ্রীলঙ্কা ও ভারতের সাংস্কৃতিক, ঐতিহ্যগত ও ভাষাগত সম্পর্ক প্রায় দু হাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে চলে আসছে। হিন্দি এই সম্পর্ককে আরও শক্তিশালী করতে ভূমিকা রাখছে।”

এছাড়া, প্রতিবছর ভারত সরকার শ্রীলঙ্কার ছাত্রদের স্বনামধন্য ভারতীয় প্রতিষ্ঠান এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে হিন্দি অধ্যয়নের জন্য প্রচুত বৃত্তি প্রদান করে থাকে বলেও জানান এই কূটনীতিক। পাশাপাশি গোটা দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে হিন্দি ভাষার প্রচারে স্বামী বিবেকানন্দ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য, বর্তমানে শ্রীলঙ্কার প্রায় ১০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং ৮০ টি সরকারী স্কুলে হিন্দি পড়ানো হচ্ছে।

জ্যাকব জানান, “শ্রীলঙ্কায় হিন্দি ভাষার প্রসারে ভূমিকা রাখায় সম্প্রতি প্রয়াত লঙ্কান অধ্যাপক ইন্দ্র দাসানায়েককে মরণোত্তর 'পদ্মশ্রী' পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে, যা ভারতের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মানগুলির মধ্যে একটি। এটি ভারত সরকার শ্রীলঙ্কার সাথে নিজেদের সাংস্কৃতিক সম্পর্কের প্রতি যে গুরুত্ব দেয়, তারই ইঙ্গিতবাহী।”

ভারতীয় হাইকমিশনের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিশ্ব হিন্দি দিবস উপলক্ষে শ্রীলঙ্কা পুলিশের জন্য হিন্দি কোর্স চালু করায় দেশটির জননিরাপত্তা মন্ত্রকের সচিব মেজর জেনারেল (অব.) জগথ আলভিস আনন্দ প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ে শ্রীলঙ্কা পুলিশকে দেওয়া সহায়তার জন্য ভারত সরকার এবং ভারতের হাইকমিশনকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

জানা গিয়েছে, অনুষ্ঠান চলাকালে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের বিশেষ বার্তা পড়ে শোনান ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার। তাছাড়া, পররাষ্ট্র ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী মীনাক্ষী লেখি এবং শ্রীলঙ্কায় ভারতের হাইকমিশনার গোপাল বাগলে-এর ভিডিও বার্তাও দর্শকদের উদ্দেশ্যে প্রচার করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর শ্রীলঙ্কা পুলিশ কর্মীদের জন্য হিন্দি কোর্সের প্রথম বক্তৃতা হয়। অনুষ্ঠানের সম্মানিত অতিথি ছিলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক সিডি বিক্রমরত্নে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক