জার্মান নৌবাহিনী প্রধান ভাইস অ্যাডমিরাল কে-আচিম শোনবাখের সঙ্গে পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা (বাঁয়ে)

ভারতে সফররত জার্মান নৌবাহিনীর প্রধান ভাইস অ্যাডমিরাল কে-আচিম শোনবাচের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন পররাষ্ট্র সচিব শ্রী হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। ২০ জানুয়ারী, বৃহস্পতিবার, ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে জার্মানির বৃহত্তর সম্পৃক্ততার প্রেক্ষাপটে সামুদ্রিক সহযোগিতা নিয়ে মতবিনিময় করেন তাঁরা।

পরবর্তীতে তথ্যটি নিশ্চিত করে একটি টুইট করেন ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অফিশিয়াল মুখপাত্র। সেখানে তিনি লিখেছেন, “জার্মান নৌবাহিনীর প্রধান ভাইস অ্যাডমিরাল শনবাখকে স্বাগত জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব শ্রিংলা। ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে জার্মানির বৃহত্তর সম্পৃক্ততার প্রেক্ষাপটে সামুদ্রিক সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করেছেন তাঁরা।”

এছাড়াও, ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল আর হরি কুমারের সাথেও সাক্ষাৎ করেছেন জার্মান নৌ প্রধান। সেখানে দুই বাহিনীর মধ্যকার আন্তঃসম্পর্ক জোরদার করার বিষয়ে এবং আন্তঃকার্যক্ষমতা বাড়ানোর উপায় নিয়ে আলোচনা করেছেন দুই সামরিক নেতা। এর আগে ভারতে অবতরণের পর নয়াদিল্লির সাউথ ব্লক লনে চিত্তাকর্ষক গার্ড অফ অনার দিয়ে স্বাগত জানানো হয় জার্মান নৌ প্রধানকে।

গত বছরের ডিসেম্বরে ভারত এবং জার্মানির ১৪ তম সামরিক সহযোগিতা উপ-গোষ্ঠীর বৈঠকে বসেছিলো। সেখানে দুই দেশের কর্তৃপক্ষই সামরিক সহযোগিতার পরিধি এবং গভীরতায় গভীর সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছিলো এবং দ্বিপাক্ষিক সামরিক সম্পর্ক আরও উন্নত করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছিলো।

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক সময়ে জার্মানীর সাথে বাণিজ্যিক ও কূটনৈতিক সম্পর্ক উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে ভারতের। ২০০১ সাল থেকে কৌশলগত অংশীদারিত্ব উপভোগ করছে দেশ দুটো। ২০০৬ সালে ভারত-জার্মানী প্রতিরক্ষা সহযোগিতা চুক্তিও করা হয়।

তাছাড়া, গত ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ সালে দেশটিতে সফর করেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। পাশাপাশি প্রতিবছরই উচ্চ স্তরের প্রতিরক্ষা বৈঠকে মিলিত হয় দেশ দুটো। এছাড়া, অনেকগুলো যৌথ প্রকল্পও বাস্তবায়িত হচ্ছে দুই দেশের মধ্যে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক