আগ্নেয়গিরি এবং সুনামিতে বিধ্বস্ত টোঙ্গার ক্ষতি ও সেখানকার মানুষের দুর্দশা নিয়ে গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছে ভারত সরকার।

এবার সুনামি বিধ্বস্ত টোঙ্গার পাশে দাঁড়ালো ভারত। ২৫ জানুয়ারী, মঙ্গলবার, ভারত সরকারের তরফ ঘোষণা করে হয়েছে, ২০০,০০০ মার্কিন ডলার আর্থিক সহায়তা করা হবে টোঙ্গাকে। সেখানকার দুর্গত মানুষদের ত্রাণ, পুনর্বাসন ও পুনর্গঠনের জন্য এই আর্থিক সহায়তা করা হবে বলে জানিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

প্রসঙ্গত গত ১৫ই জানুয়ারি টোঙ্গা জুড়ে জেগে উঠেছিল ভয়াবহ আগ্নেয়গিরি। আর লাভা উগদীরণের জেরে সমুদ্রে দেখা দিয়েছিল সুনামি। হোঙ্গা-টোঙ্গা- হুঙ্গা হাপাই আগ্নেয়গিরির লাভা উদগীরণের জেরে ব্যাপক জলোচ্ছাস দেখা দেয় প্রশান্ত মহাসাগরে। এমনকী প্রায় ২৩০০ কিলোমিটার দূরে নিউজিল্যান্ডেও শোনা যায় তার শব্দ।

নাসার দাবি, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে আমেরিকা যে পারমানবিক বোমা ফেলেছিলো, তার থেকেও শতগুণে শক্তিশালী ছিল এই আগ্নেয়াগিরির অগ্ন্যুৎপাত। এর জেরে টোঙ্গার বিপুল সংখ্যক মানুষ ক্ষতির মুখে পড়েন। এই ঘটনায় ৬ জনের মৃত্যুও হয়।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে বিবৃতি জারি করে জানানো হয়েছে, ফোরাম ফর ইন্ডিয়া- প্যাসিফিক আইল্যান্ড কো- অপারেশনের নিকট বন্ধু ও অংশীদার হিসাবে ভারত সরকার টোঙ্গাকে আর্থিক সহায়তা করবে। পাশাপাশি টোঙ্গার ক্ষতি ও সেখানকার মানুষের দুর্দশা নিয়ে গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছে ভারত সরকার।

এদিকে বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে এর আগেও ২০১৮ সালে সাইক্লোন বিধ্বস্ত টোঙ্গার পাশে দাঁড়িয়েছিল ভারত। এদিকে টোঙ্গার তরফে জানানো হয়েছে এবারের আগ্নেয়াগিরির লাভা উদগীরণের জেরে পাঁচ চতুর্থাংশ বাসিন্দা সুনামিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক